Author

আশরাফুল আলম শাওন

Browsing

বেশ আগের ঘটনা। প্রায় সাত আট বছর।

একটা পরিবারের মধ্যে যে কত রকম অন্ধকার সম্ভাবনা লুকিয়ে থাকে এবং লোভ, হিংসা, রাগ এসব মানবীয় কারণে সবচেয়ে চেনা মানুষটাও যে অচেনা হয়ে ওঠে ও অপ্রত্যাশিত কাজ করে বসে তার উদাহারণ এই ঘটনা।

মুশফিকের নতুন চাকরি। চাকরির শুরুতেই পোস্টিং নীলফামারীর সৈয়দপুরে। প্রাইভেট ব্যাংকের চাকরি, বেতন যথেষ্টর চেয়েও ভাল। চাকরির আবেদনের শর্তেই লেখা ছিল বাংলাদেশের যে কোনো জায়গায় কাজ করার ব্যাপারে আপত্তি থাকা যাবে না। ঢাকাতে বড় হলেও মুশফিক তখন ঢাকা ছাড়ার ব্যাপারে প্রচণ্ড আগ্রহী। সাত-আট বছর আগের ঢাকা এখনকার মত বসবাস অযোগ্য না হলেও, তখনও বসবাসের জন্য অসহ্য একটা শহর ছিল।

সৈয়দপুরের সেই ঘটনার পরে বড় ধরনের পরিবর্তন হয়েছে মুশফিকের। এবং সেটাই হয়ত স্বাভাবিক। সে ধার্মিক হয়েছে। শুধু আমাদের গ্রুপটার সাথেই না, যে কোনো যোগাযোগ ও সম্পর্কের ক্ষেত্রেই পরিশীলিত ও সাবধানী হয়ে উঠেছে সে।

মুশফিকের পরিকল্পনা ছিল সৈয়দপুরে গিয়ে এক সপ্তাহ বা দশ দিনের জন্য স্থানীয় একটা হোটেলে উঠে অফিস শুরু করবে। এর মধ্যে ছোট বা মাঝারি সাইজের একটা বাসা খুঁজে বের করবে।