হোস্টেল (১১)

আপু হঠাৎ করে বললেন, “জানিস এই ছেলেটাকে ডাম্প করে আমি তোর ভাইয়ার সাথে প্রেম শুরু করি।…”

হোস্টেল (৯)

আপুকে হঠাৎ চেন্জ চেন্জ লাগছে। ভাইয়ার দাঁতমুখ খিচিয়ে কথা বলা আর আপির হাসি হাসি মুখের কারণ দুইটা মিলাতে পারছি না।

হোস্টেল (৮)

লিমন ভাইয়ার ক্যাঁ করে ওঠাটা খুবই আনস্মার্ট ছিল। আমার কানে ক্যাচ ক্যাচ করে লাগল। মানুষ তো স্মার্টলিও উহ্‌ আহ্‌ করতে পারে!

হোস্টেল (৭)

রিযাদ একটু কোমল স্বরে আমার দিকে ঘুরে বসে বলল, “নাও এটা তোমার জন্য আমার দেওয়া মনে হয় শেষ গোলাপ। এখন আর প্রতিদিন তোমাকে গোলাপ দেওয়া হবে না।

হোস্টেল (৬)

রিমন তাও দাঁড়িয়ে আছে। চশমা খুলে আমাকে বলল, “চল না একটু ছাদে যাই। বাসায় বলবা যে লিফট বন্ধ, তাই একটু লেট হল।

হোস্টেল (৫)

গোসলের সময় আসত সবাই জামা-কাপড় সব খুলে শুধু গামছা বা তোয়ালে জড়িয়ে বাথরুমে ঢুকত। গোসল করে বেরও হত ওই গামছা পরে।

হোস্টেল (৪)

ঝর্না আপু তার একটা পা আমার কোলের উপর দিয়ে শুয়ে শুয়ে মুভি দেখার জন্য রেডি। এই পা তোলার ব্যাপারটায় আমি খুব বিরক্ত হই। কিন্তু কিছু বলতে পারি না কারণ ঝর্না আপু মিতা আপুরও আপু হয়।

হোস্টেল (৩)

আমি ভাব নিয়ে টিনার সাথে কথা বলছি। সনি পিঠে একটা কিল দিয়ে বলল, ওই এদিক তাকা, টিনারে ভাগা তো, কথা আছে। টিনা তো রেগে আগুন, মানে তুমি বললেই বিথী আমাকে ভাগিয়ে দিবে?