উপন্যাস Archive

লৌহিত্যের ধারে (৭)

আমরাও আওয়াজ কইরাই পড়তাম। একদিন নানু আমারে জিগাইলেন, ‘অফ’ মানে কী।

নারগিস (৬)

একটা বই না পড়েও ‘সেরা পাঠক’! আমার খুব হিংসা হল। খুব দুঃখও হল। অপমানও লাগল।...

খইট্টাল (৬)

দাদি ঘরের তন উডানো খাড়াইয়া চিল্লাইতে লাগলেন, "যাইছ নারে ছেলামইত্তা, যাইছ না কইলাম।"

লৌহিত্যের ধারে (৬)

খালি ছেইড়াইন আর বেইট্টাইন লইয়াই যত আলাপ।

হসপিটাল (২)

মাইকেল খাওয়া থামাইয়া অ্যানরে জিজ্ঞেস করল, তুমি কি জানতা যে সানিয়া মুসলিম?

খইট্টাল (৫)

বাপে মনে অয় জানতো না কালিকাবুরির দাদি কত গরিব।

লৌহিত্যের ধারে (৫)

প্রথম যখন নুডলস রান্ধা হইছে বাসায়, আমার দাদি জোবেদা খাতুন কইছিলেন, “এইগুলা হালালই না হারামই।”

লৌহিত্যের ধারে (৪)

ব্রহ্মপুত্র নদের সঙ্গে একটা রক্তাক্ত ইতিহাস জড়াইয়া আছে।

হসপিটাল (১)

আমার মনে হইলো, আশেপাশের সবাই আমার কথা শুনতেছে। শুনুক।

রকি রোড সানডে (১০)

সেইদিন পতেঙ্গার ছাই রঙা পানি আর ততধিক ছাই রঙা সূর্য দেইখা মনে হইছিল আমি শুধু...